মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

উপজেলার ঐতিহ্য

(১) উপজেলার ঐতিহ্য :  করমজা ইউনিয়নে তলট গ্রামে তথকথিত একজন জমিদার ছিলেন। এখানে একটি মঠ আছে। যা দর্শণীয় স্থান। ক্ষেতুপাড়া ইউনিয়নে ক্ষেতুপাড়া মৌজায় শ্রীযুক্ত শ্যামাচরণ রায় নামক একজন জমিদার ছিলেন তিনি তৎকালীন জেলা বোর্ডের সচিব ছিলেন। তিনি  অনেক জনসেবামূলক কাজ করেছিলেন।ধোপাদহ ইউনিয়নে ধোপাদহ গ্রামে শ্রীযুক্ত ঋষিকেস তালুকদার নামে একজন জমিদার ছিলেন।

  সাঁথিয়া উপজেলা পাবনা জেলার দ্বিতীয় বৃহত্তম উপজেলা। ৩৩১.৫৬ বর্গ কি:মি: আয়তনের এ উপজেলা পাবনা শহর থেকে ৩৫ কি: মি: পূব দিকে অবস্থিত।সাঁথিয়া উপজেলা উত্তরে ফরিদপুর ও শাহজাদপুর উপজেলা, পশ্চিমে আটঘরিয়া ও পাবনা সদর উপজেলা, দক্ষিণে সুজানগর ‍উপজেলা এবং পূর্বে বেড়া উপজেলা দ্বারা বেষ্টিত। সাঁথিয়া উপজেলার নামকারণ সম্পর্কে বিভিন্ন জনশ্রুতি আছে। জানা যায় সমগ্র সাঁথিয়া অতীতে চরভূমি ছিল। এই চরে সিনথিয়া নামে এক সাঁওতাল আদিবাসি বাস করত। পরবর্তীতে অন্যান্য এলাকা থেকে সাঁওতালরা এসে সিনথিয়ার সংগে বসবাস করতে শুরু করে একটি গ্রামের সৃষ্টি হয়।আদিবাসি সিনথিয়ার নাম থেকেই পরবর্তীতে সাঁথিয়া নামের উৎপত্তি হয় মর্মে শোনা যায়।

দ্বিতীয় জনশ্রতি মতে অনেক সাঁথিয়া অঞ্চল গভীর জংগলে পরিপূর্ণ ছিল।সংগী অথবা সাথী ছাড়া কেউই একা এই এলাকায় চলাফেরা করত ‍না। সকলেই সাথী সহ এখানে আসতেন। পরবর্তীতে এই সাথী থেকেই সাঁথিয়া নামের উদ্ভব মর্মে শোনা যায়। সাঁথিয়া উপজেলার ইতিহাস পর্যালোচনায়  জানা যায় বৃটিশ শাসন আমলে লর্ড ওয়ারেন হেষ্টিংসের সময় ১৯১৯ সালে সাঁথিয়া থানার জন্ম। ১৯৬০ সালে তৎকালীন আইয়ুব খান এর শাসন আমলে সাঁথিয়া উন্নয়ন সার্কেল হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করে। পরবর্তীতে ১৯৮৩ সালে ১৪ সেপ্টেম্বর সাঁথিয়া উপজেলায় উন্নীত করা হয়।